বুধবার, ১৫ মে, ২০১৯

ভাতের দাম


ভাতের দাম
অদিতি দাম

ললিতের আজকের ছবিটা  প্রায় সাড়ে ৬ লাক্ষ টাকা বিক্রি হল। এক বিদেশী  পর্যটক  ছবিটি  নিয়ে গেলেন।  পূজার মনে আনন্দের শেষ নেই। পাড়ার লোককে ডেকে ডেকে মিস্টি খাওয়াচ্ছে।  না সত্যি আনন্দ হওয়ারই কথা।
ললিত  ছোটো  থেকেই খুব ভালো  ছবি আঁকতো।  পড়ার পাশাপাশি  ছবি আঁকাটাকে সে নেশা করে নিয়েছিলকবে যে এটা কে পেশা করবে ঠিক  করে ফেলে সে নিজেও জানতো  না।  হঠাত বাবা একদিন বেসরকারি  চাকরির একটা কল লেটার ললিতের হাতে দিয়ে বলল " সকাল ৯ টা  থেকে রাত ৮ টা  অবধি ডিউটি মাসে সাড়ে  সাত হাজার টাকা মাইনে। " ললিত শুধু  প্রতিবাদ করে বলেছিল " আমার ছবি আঁকাটা....." বাবা গর্জে বলেছিল " ওসব ছবি টবি একে কোনো  লাভ নেইশিল্পী  দের আবার ভাত আছে নাকি?  "
সেদিন পূজা এসে হাত ধরেছিল ললিতের।  আজও হাত টা  ধরে আছে।  ললিত পূজার হাত ধরে বাড়ি ছেড়েছিল। পূজা সেদিন ভাতের দায়িত্ব  নিয়েছিল বলেআজ তার ছবি লাক্ষ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।  ললিত পূজার হাতে টাকাটা দিতে দিতে বলল- "ভাতে দামের কিছুটা ঋণ  শোধ করলাম "।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন