বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন। ইমেইল - netphoring@gmail.com ফোন - 7908076073

This is default featured slide 1 title

Go to Blogger edit html and find these sentences.Now replace these sentences with your own descriptions.

This is default featured slide 2 title

Go to Blogger edit html and find these sentences.Now replace these sentences with your own descriptions.

This is default featured slide 3 title

Go to Blogger edit html and find these sentences.Now replace these sentences with your own descriptions.

This is default featured slide 4 title

Go to Blogger edit html and find these sentences.Now replace these sentences with your own descriptions.

This is default featured slide 5 title

Go to Blogger edit html and find these sentences.Now replace these sentences with your own descriptions.

বৃহস্পতিবার, ২৫ জানুয়ারী, ২০১৮

নেটফড়িং সংখ্যা ২০ এর কবিতাসমূহ

শীতের আমেজ
কাজী সামসুল আলম



শীতের চোটে কাঁপছে সবাই

আলতো রোদে গরম

কাঁপন ধরা গোলাপ চারায়

পাতা নরম নরম



শীতের বুড়ির এবার বুঝি

একটু কচি বয়েস!

জমবে তবে এমন শীতে

পিঠে পুলি পায়েস



লেপ সোয়েটার টুপি জ্যাকেট

হাত মোজা আর শাল

মানছে না শীত কাঁপছে শরীর

সবাই নাজেহাল

খোলা হাওয়ার ফুটপাতে যে

ফেরিওয়ালা ঘুমায়

কোন দরদী তাকে নিয়ে

একটু মাথা ঘামায়?



লেপ কম্বল যার নেইকো

তার বলো কী হয়

ঠক্ ঠক্ কাঁপছে সে যে

সকাল সন্ধ্যাময়।





ডুয়ার্স 

মধুসূদন সরকার

ডুয়ার্স আমার হলদে পাখি,

চিলাপাতার বন,

ডুয়ার্স আমার মাতাল নদী ,

টোটো পাড়ার জীবন।

ডুয়ার্স মানেই সবুজপাতা,

পাহাড় ঘেঁষা মেঘ,

ডুয়ার্স আমার সহজ কথা,

তোর্সা নদীর বেগ।

ডুয়ার্স আমার মনসুর আলি,

ভাটিয়ালী গান,

ডুয়ার্স আমার পাথর-বালি,

মেচ-রাভারই প্রাণ।

ডুয়ার্স আমার মাদলতালে,

সাঁওতালী মেয়ের নাচ,

ডুয়ার্স আমার রসিক বিলে,

শাল-মহুয়ার গাছ।

ডুয়ার্স আমার প্রাণের প্রিয়া,

সোনার মোরা গ্রাম,

ডুয়ার্স আমার শীতল ছায়া,

মহাকালের ধাম।। 



কলঙ্ক

এ এস রহমান



চাদেঁর গায়ে লেগে থাকা কলঙ্কের দাগটি

আজও খোঁজেনি কেউ

মেঘের হ্নদপিন্ড চিড়ে অবাক চোখে তাকিয়ে আছি,

তাকে নিয়ে ভালবাসার গল্প করি, কবিতা শোনাই

সমুদ্রসৈকতে প্রেমিকার ভেজা চুলের গন্ধ

কলঙ্ক মেটেনি, তবুও হাসছে সে

নবজাতক শিশুটিও

কারণ চাঁদ জানত কলঙ্কই তার অলঙ্কার



কবিতা মুখ ঢেকে  বসে আছে

কলঙ্ক বিক্রি করছে সংবাদপত্র

ভালোবাসার গল্পে শুকনো লঙ্কার আচঁ

সমাজ হাসছে

কেউ ভরা পেটে তালি দিচ্ছে

কেউ খালি পেটে শান্তনা,

টাইপ রাইটারের ঠক ঠক আঙ্গুলের শব্দে মিলিয়ে যাচ্ছে কবিতা, তাকে শোনার  মানুষ নেই।।

 

অন্তিম ক্ষণ

অ্যাসত্রিক্স

এক দিন চলতে চলতে শেষ হয়ে যাবে এই রাস্তা,

এক দিন থাকবে না এই বৃষ্টি, থাকবে না কুয়াশা,

থাকবে না যে সেই উষ্ণ রোদ্দুর এর ছোঁয়া,

মনে পড়বে না সেই চায়ের দোকানের আড্ডা।
মনে থাকবে না রোজকার সেই ব্যস্ত জীবনের নিয়মটা।
ইচ্ছে হলেও, উঠে মুছতে পারবো না
সেই কাছের মানুষের চোখের জল।
সব সম্পর্ক, ভালবাসা, রাগ, হাসি, ঠাট্টা,
কিছুই থাকবে না আর,
সব তখন শান্ত, কালো অন্ধকারে জড়ানো যেনো সব,
চোখ দু খানি আর খুলবে না,
ঠোঁট দুটোও আর কথা বলবে না।
ক্লান্ত শরীর টা নিস্তব্ধ হয়ে পড়ে থাকবে এক কোণে,
উষ্ণ হৃদয় টাও বরফে পরিনত হবে সেই ক্ষণে,
আর স্বপ্ন দেখব না,
আর ছবি আঁকব না,
আর কবিতা লিখব না,
আর গানও গাইবো না।
সেই দিন থেকে আমার ছুটি, আমার গল্প শেষ,
এবার পাড়ি দেওয়া অন্য রাজ্যে, অন্য আরেক দেশ।





রবিবার, ২১ জানুয়ারী, ২০১৮

নেট ফড়িং সংখ্যা ২০

লিখেছেনঃ কাজী সামসুল আলম, লিপি সাহা, সুবিনয় বিশ্বাস, মধুসূদন সরকার, সামিম জামান, এ এস রহমান এবং আরও অনেকে।
থাকছেঃ ছবি ও ভাবনা, ছোটদের পাতা, রান্না-বান্না ইত্যাদি।